আজকের দিন তারিখ ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অর্থ ও বাণিজ্য বড় লোকসান থেকে মুনাফায় খাদ্য খাতের ২ কোম্পানি

বড় লোকসান থেকে মুনাফায় খাদ্য খাতের ২ কোম্পানি


পোস্ট করেছেন: Dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ২৩, ২০২১ , ১২:১০ অপরাহ্ণ | বিভাগ: অর্থ ও বাণিজ্য


দিনের শেষে প্রতিবেদক : পুঁজিবাজারের খাদ্য ও আনুষঙ্গিক খাতের দুই কোম্পানি করোনার মধ্যেও বড় লোকসান থেকে মুনাফায় ফিরেছে। কোম্পানি দুটি হলো-এপেক্স ফুড ও রহিমা ফুড লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
তথ্যমতে, ৩০ জুন, ২০২০ অর্থবছরের প্রথম ৯ মাসে কোম্পানি দুটি বড় লোকসানে ছিল। কিন্তু সদ্য সমাপ্ত ৩০ জুন, ২০২১ অর্থবছরে কোম্পানি দুটি বড় লোকসান থেকে মুনাফায় ফিরেছে।
এপেক্স ফুড: জুন, ২০২১ অর্থবছরের প্রথম ৯ মাসে (জুলাই’২০-মার্চ’২১) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ২৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ৪ টাকা ৫৮ পয়সা।
তবে আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্য কিছুটা কমেছে। ৩০ মার্চ, ২০২১ তারিখে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্য হয়েছে ১২০ টাকা ৩৪ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে সম্পদ মূল্য ছিল ১২০ টাকা ৬৩ পয়সা।
এপেক্স ফুড ৩০ জুন, ২০২০ অর্থবছরের জন্য বিনিয়োগকারীদের ১৫ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। সে বছর কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ১ টাকা ৮৮ পয়সা। এর বর্তমান পরিশোধিত মূলধন ৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার বিপরীতে রিজার্ভ রয়েছে ৪৪ কোটি ২৪ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট শেয়ার সংখ্যা ৫৭ লাখ ২ হাজার ৪০০টি। এর মধ্যে উদ্যোক্তা পরিচালকদের কাছে রয়েছে ৩৮.৯৬ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ৪.৪৬ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে ৫৬.৫৮ শতাংশ।
উল্লেখ্য, জুন মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে। অন্যদিকে, সাধারণ বিনিয়োকারীদের অংশ বেড়েছে। ৩০ মে. ২০২১ তারিখে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৫.৮৯ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের ৫৫.৩৫ শতাংশ। ৩০ জুন, ২০২১ তারিখে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমে দাঁড়িয়েছে ৪.৮৬ শতাংশে এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের শেয়ার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৬.৫৮ শতাংশে।
রহিমা ফুড: জুন, ২০২১ অর্থবছরের প্রথম ৯ মাসে (জুলাই’২০-মার্চ’২১) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ১ টাকা ৩৯ পয়সা।
আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্যও বেড়েছে। ৩০ মার্চ, ২০২১ তারিখে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্য হয়েছে ৯ টাকা ৬৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে সম্পদ মূল্য ছিল ৯ টাকা ৫৭ পয়সা। রহিমা ফুড ৩০ জুন, ২০২০ অর্থবছরের জন্য বিনিয়োগকারীদের কোন ডিভিডেন্ড দেয়নি। এমনকি কোম্পানিটি শেষ কোন বছর বিনিয়োগকারীদের ডিভিডেন্ড দিয়েছে, এ বিষয়ে ডিএসইতে কোন তথ্য নেই। এটি একটি নেগেটিভ রিজার্ভের কোম্পানি। বর্তমানে এর রিজার্ভ নেগেটিভ রয়েছে ৮৫ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট শেয়ার সংখ্যা ২ কোটি ২০০টি। এর মধ্যে উদ্যোক্তা পরিচালকদের কাছে রয়েছে ৪৫.২৩ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ১২.৮২ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে ৩৬.৯৬ শতাংশ।
উল্লেখ্য, গত এক বছর যাবত কোম্পানিটির উদ্যোক্তা পরিচালক, প্রাতিষ্ঠানি বিনিয়োগকারী এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ধারন অপরিবর্তিত রয়েছে।