আজকের দিন তারিখ ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লাইফ স্টাইল সাহ্‌রির খাওয়া দাওয়া

সাহ্‌রির খাওয়া দাওয়া


পোস্ট করেছেন: admin | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ১৩, ২০১৬ , ২:০৫ অপরাহ্ণ | বিভাগ: লাইফ স্টাইল


phoঅনলাইন লাইফস্টাইল ডেস্ক: চলছে রমজান মাস, দৈনিক খাবারের তালিকা ইফতার আর সাহ্‌রিকে ঘিরে। সারাদিন রোজা থাকার মাঝেও নিজের শরীর সুস্থ রাখাটা প্রধান বিষয়। সুস্থভাবে রোজা করতে চাইলে কিছু খাবার আমাদের সাহ্‌রিতে বর্জন করা উচিত।

* বিরিয়ানি, পোলাও, খিচুড়ি এগুলো খেলে প্রচুর পানি পিপাসা পায়। তাই এই খাবারগুলো সাহ্‌রিতে না খাওয়াই ভালো। অতিরিক্ত তৈলাক্ত খাবার না খাওয়া ভালো।

* মাংস বা শক্ত আঁশ জাতীয় খাবার খেলে তা দাঁতে বেঁধে থাকে। এতে মুখে গন্ধের সৃষ্টি হয়। আর তাই মাংস বা শক্ত আঁশ জাতীয় খাবার পরিহার করা উচিত।

* দুধ বা ডাল না খাওয়া ভালো সাহ্‌রিতে। কারণ এর ফলে পরবর্তীতে পানি পিপাসা পায়। এছাড়া নারকেলের দুধের তরকারিও না খাওয়া ভালো।

* মিষ্টি জাতীয় খাবার না খাওয়া। মিষ্টি জাতীয় খাবার শরীরে পানির চাহিদা বাড়ায়, এছাড়া মুখে গন্ধ তৈরি করে।

* অনেকে ইফতারির থেকে যাওয়া ভাজা পোড়া সাহ্‌রিতে খাওয়া শেষে খেয়ে থাকেন, এটা করবেন না।

* গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দেখা দিতে পারে যেসব খাবার খেলে তা যথাসম্ভব না খাওয়া। আর যাদের গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা আছে তাদের উচিত খাওয়ার আগেই ঔষধ খেয়ে নেয়া।

* যাদের ডায়াবেটিস আছে তারা তো অবশ্যই তাদের খাদ্য তালিকা অনুসরণ করবেন। যারা রোজার পূর্বে খাওয়ার আগে এবং পরে ঔষধ খেতেন তাদের উচিত ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে ওই ঔষধগুলো কখন খাবেন তা জেনে নেয়া।

* যথা সম্ভব চেষ্টা করুন শাকসবজি এবং মাছ বেশি করে খাওয়ার। এতে শরীরে পানির চাহিদা কম হবে আর আপনিও সুস্থ থাকবেন। গরমের মধ্যে রোজার সময়টা বেশি থাকে। তাই রোজা রাখাটা যেমন জরুরি তেমন নিজেকে সুস্থ রাখাটাও জরুরি।

* সারাদিন পানি না খেতে পারার কারণে শরীরে পানি শূন্যতা দেখা দিতে পারে। তাই চেষ্টা করুন ইফতার থেকে শুরু করে সাহ্‌রির সময়ের মধ্যে অন্তত আট গ্লাস পানি খাওয়ার।