আজকের দিন তারিখ ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সারাদেশ রেলমন্ত্রীকে ডিও লেটার দিলেন এমপি কালাম : আব্দুলপুরে ৮টি ট্রেনের বিরতির দাবি 

রেলমন্ত্রীকে ডিও লেটার দিলেন এমপি কালাম : আব্দুলপুরে ৮টি ট্রেনের বিরতির দাবি 


পোস্ট করেছেন: Dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২৪ , ১২:১৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: সারাদেশ


লালপুর  (নাটোর)  প্রতিনিধি : নাটোরের লালপুর উপজেলার আব্দুলপুর রেলওয়ে জংশনে রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিম এর  আকস্মিক আগমন করেন । এ সময় ৮টি ট্রেনের বিরতি চেয়ে ডিও লেটার দিয়েছেন নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. আবুল কালাম আজাদ ।
শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানা পরিদর্শন শেষে ঢাকা ফেরার পথে রাত ৯টায় নাটোরের আব্দুলপুর রেলওয়ে জংশনে রেল মন্ত্রী জিল্লুল হাকিম  সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দেন। এ সময় তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান সংসদ সদস্য  আবুল কালাম আজাদ।
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নাটোর জেলা প্রশাসক  মো. আবু নাছের ভুঁঞা, পুলিশ সুপার তরিকুল ইসলাম, লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু, বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি অধ্যাপক আবুল হোসেন, নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক আমজাদ হোসেন, চংধুপইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিমসহ প্রায় ২ হাজার আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
সমাবেশে রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিম বলেছেন, বিএনপির শাসনামলে তারা রেলের দক্ষ জনবলকে গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে বিদায় করে দিয়েছিল। শুধু তাই নয়, অনেক জায়গায় নতুন করে যেসব রেললাইন আমরা স্থাপন করেছিলাম সেসব লাইন তুলে বিক্রি করে দিয়েছিল তারা। যেখানে আমাদের ২৮০০ জনবল দরকার সেখানে ৮০০ লোক দিয়ে কাজ চালাতে হচ্ছে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নতুন নতুন রেলপথ তৈরি ও সম্প্রসারণে কাজ করছেন। অল্প খরচে রেলসেবা মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে তিনি নির্দেশনা দিয়েছেন। আমরা সেই নির্দেশনা বাস্তবায়নে কাজ করছি। আমরা আমাদের সীমিত সম্পদ ব্যবহার করে রেল সেবাকে সুলভ ও মানসম্মত করে তুলবো। সমাবেশে রেলমন্ত্রী বলেন , সাবেক সংসদ শহীদ মমতাজ উদ্দিন আমার খুব কাছে মানুষ ছিলেন। তাঁর ছোটভাই সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদের সঙ্গে আলোচনা করে পর্যায়ক্রমে  ট্রেনগুলো বিরতি দেয়ার আশ্বাস দেন তিনি।