আজকের দিন তারিখ ১০ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ২৭শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
/////হাইলাইটস///// মানসিক সমস্যায় ভুগছেন করোনা আক্রান্তরা

মানসিক সমস্যায় ভুগছেন করোনা আক্রান্তরা


পোস্ট করেছেন: dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ৯, ২০২১ , ১২:৫৬ অপরাহ্ণ | বিভাগ: /////হাইলাইটস/////


দিনের শেষে ডেস্ক :   করোনা থেকে সেরে ওঠা এক-তৃতীয়াংশ মানুষ দীর্ঘমেয়াদি স্নায়বিক ও মানসিক সমস্যায় ভুগছেন। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণা প্রতিবেদনে এমন ভয়াবহ তথ্য উঠে এসেছে। সিএনএন-এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনা থেকে সেরে ওঠার ছ’মাসের মধ্যে ৩৪ শতাংশ রোগীর স্নায়বিক ও মানসিক সমস্যা দেখা গেছে। এর মধ্যে ১৭ শতাংশের মধ্যে পাওয়া গেছে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠাজনিত সমস্যা। আর মেজাজ নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পারার সমস্যায় ভুগছেন ১৪ শতাংশ। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া মহামারি করোনা নিয়ে দেশে দেশে চলছে বিস্তর গবেষণা। মহামারির কারণে এমনিতেই বিষণ্ণতায় ভুগছেন বিশ্বের অধিকাংশ মানুষ। দীর্ঘদিন ঘরবন্দি থাকায় বেড়ে গেছে পারিবারিক অশান্তিও। এর মধ্যে করোনা নিয়ে ভয়াবহ তথ্য দিল এক দল গবেষক।

ল্যানসেন্ট সাইকিয়াট্রি জার্নালে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন জানায়, করোনা থেকে সেরে ওঠা এক-তৃতীয়াংশ মানুষ দীর্ঘমেয়াদে স্নায়বিক ও মানসিক সমস্যায় ভুগছেন। যারা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন, তাদের মধ্যে স্নায়বিক সমস্যা বেশি। হাসপাতালের বহির্বিভাগে চিকিৎসা নেয়া রোগীদের ক্ষেত্রেও এমন সমস্যা দেখা গেছে। এ প্রসঙ্গে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেলো ম্যাক্সিম তাকুয়েট বলেন, আমাদের গবেষণায় দেখা যাচ্ছে যে সাধারণ ফ্লু বা অন্যান্য শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার তুলনায় করোনা আক্রান্ত রোগীদের মস্তিষ্কের রোগ ও মানসিক সমস্যা বেশি। এখন আমাদের দেখতে হবে ছ’মাস পর কী ঘটে। করোনায় অসুস্থতার তীব্রতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই হারও বেড়েছে। হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের ক্ষেত্রে এই হার সবচেয়ে বেশি।

দু’লাখ ৩৬ হাজারের বেশি করোনা রোগীর হেলথ রেকর্ড নিয়ে ওই গবেষণা চালানো হয়। রোগীদের অধিকাংশই যুক্তরাষ্ট্রের। এখন পর্যন্ত এ ধরনের এটি সবচেয়ে বড় পরিসরের গবেষণা। এতে দেখা গেছে, প্রতি ৫০ জন করোনা রোগীর একজন মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধে ইশেমিক স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছেন। নতুন এই গবেষণার ফল করোনা রোগীদের চিকিৎসার ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।