আজকের দিন তারিখ ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সারাবিশ্ব, সারাবিশ্ব লীড সত্যিকারের অকালপক্ক

সত্যিকারের অকালপক্ক


পোস্ট করেছেন: admin | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ১, ২০১৬ , ১০:৫৮ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: সারাবিশ্ব,সারাবিশ্ব লীড


childঅনলাইন ডেস্ক : ভারতের দিল্লিতে এক বিরল রোগে আক্রান্ত হয়ে আকাশ নামে দেড় বছরের শিশুর পুরুষাঙ্গ পরিণত পুরুষের মতো হয়ে গেছে। ডাক্তাররা জানিয়েছে প্রতি লাখে একজনের এ ধরনের রোগ হতে পারে।

ভারতীয় গণমাধ্যম ডেকান ক্রোনিক্যালের খবরে বলা হয়, আকাশ যে ধরনের রোগে ভুগছে সেটির নাম ‘অকালপক্কতা’ বা দ্রুত বয়ঃসন্ধি।
শিশুটির বয়স যখন ৬ মাস তখন তার দাদা-দাদি তার অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে ওঠা খেয়াল করেন। সে অন্যান্য শিশুদের চেয়ে বড় ও লম্বা হয়ে উঠে। প্রথমে খুব একটা গুরুত্ব না দিলেও যখন পুরুষাঙ্গ পরিণত পুরুষের মতো হতে থাকে তখন ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করে আকাশের বাবা-মা।

আকাশের মা সবনম প্রবিন ডেকান ক্রোনিক্যালকে বলেন, ‘প্রথমে ভেবেছিলাম বাচ্চাটি একটু বড়। কিন্তু পরবর্তীতে সবাই নিশ্চিত হই যে, তার বড় হওয়ার গতি অস্বাভাবিক। তার পুরুষাঙ্গটি ঠিক পরিণত মানুষের মতো হয়ে উঠেছে এবং তখনই বুঝতে পারলাম কিছু একটা সমস্যা আছে।’

ম্যাক্স সুপার স্পেশিয়ালিটি হাসপাতালে শিশুটির ডাক্তার বৈশাখি ‍রুস্তাগি বলেন, ‘শিশুটির এ ধরনের সমস্যার কারণে তার ব্রেইন টিউমার অথবা পাকস্থলী টিউমার হতে পারে। কিন্তু রক্ত পরীক্ষায় আপাতত সে ধরনের কিছু নজরে আসেনি। শিশুটি সত্যিকার অর্থেই ভাগ্যবান। কারণ এ ধরনের টিউমার একটা সময় ক্যান্সারের
রূপ নেয়।’
তিনি বলেন, তাকে আনা হয়েছিল ১৮ মাস বয়সে। কিন্তু তার টেস্টোস্টেরোন হরমোনের মাত্রা ছিল ২৫ বছর বয়সী পুরুষের সমান এবং মস্তিষ্কের গঠন ছিল ১২ বছরের কিশোরের মতো।

শিশুটিকে এখন হরমোন থ্যারাপির মাধ্যমে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। অবস্থা কিছুটা উন্নতির দিকে। তার হরমনজনিত সমস্যা ও পুরুষাঙ্গ কিছুটা ছোট হয়েছে।
চিকিৎসাটি ততদিন চলবে যতদিন আকাশ মানসিকভাবে শক্তিশালী হয়ে না উঠবে।

চিকিৎসা প্রসঙ্গে রুস্তাগি বলেন, যদি রোগটি নির্ণয় করা না যেত কয়েক বছর পর থেকেই শিশুটি আর বড় হত না। ৩ থেকে সাড়ে ৪ ফুট উচ্চতা নিয়েই তাকে সারা জীবন থাকতে হতো। যেহেতু জীবনের ঝুঁকি সংক্রান্ত বিষয় নয় এটি, তাই বীমা কোম্পানি আকাশের চিকিৎসা ব্যয় মেটাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।