আজকের দিন তারিখ ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
/////হাইলাইটস///// যুক্তরাষ্ট্র থেকে সয়াবিন তেল আমদানির উদ্যোগ

যুক্তরাষ্ট্র থেকে সয়াবিন তেল আমদানির উদ্যোগ


পোস্ট করেছেন: dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: মে ২৩, ২০২৩ , ২:৪৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: /////হাইলাইটস/////


দিনের শেষে প্রতিবেদক : দেশে ভোজ্যতেলের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে দেশি-বিদেশি উৎস থেকে সয়াবিন তেল আমদানি করছে। এবার যুক্তরাষ্ট্র থেকে এক কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল আমদানির উদ্যোগ নিয়েছে। গত সপ্তাহে দেশটির একটি সরবরাহ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সাড়ে ১২ হাজার মেট্রিক টন চিনি আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে। এক কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল আমদানিতে ব্যয় হবে ১২৯ কোটি ৫৮ লাখ ৭৭ হাজার টাকা। সূত্র জানায়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) এর ২০২২-২০২৩ অর্থবছরে বার্ষিক ক্রয় পরিকল্পনায় ২,৬১,৬০০ মেট্রিক টন পরিশোধিত সয়াবিন তেল ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে। মোট চাহিদার প্রেক্ষিতে এক কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল ক্রয়ের একটি প্রস্তাব গত ৩ মে টিসিবি থেকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। সূত্র জানায়, সমগ্র বাংলাদেশে (সিটি করপোরেশন ও পৌরসভাসহ) টিসিবির ফ্যামিলি কার্ডধারী নিম্ন আয়ের প্রায় এক কোটি পরিবারের মাঝে প্রতি মাসে ভর্তুকি মূল্যে টিসিবির পণ্য বিক্রির জন্য টিসিবি কর্তৃক আন্তর্জাতিকভাবে এক কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল আমদানি করার সিদ্ধান্ত হয়। সূত্র জানায়, টিসিবি কর্তৃক এক কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল আন্তর্জাতিকভভাবে ক্রয়ের জন্য পাবলিক প্রকিউরমেন্ট বিধিমালা ২০০৮ অনুসরণ করে গত ১৯ মার্চ আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বান করা হয়। দরপত্রের বিজ্ঞাপনটি দেশের দুটি দৈনিক পত্রিকা এবং সিপিটিইউ এর ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়। দরপত্র দাখিলের সর্বশেষ তারিখ ৩০ এপ্রিল ছিলো। দরপত্রের কার্যকারিতার মেয়াদ ৮ জুন পর্যন্ত। দরপত্রে নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে ১টি দরপত্র পাওয়া যায়। গত ৩০ এপ্রিল দরপত্র উন্মুক্তকরণ কমিটি দরপত্রটি উন্মুক্ত করে। যুক্তরাস্ট্রের ভার্জিনিয়ার অ্যাকসেনচ্যুয়েট টেকনোলজি ইনকরপোরেশন (স্থানীয় এজেন্ট:ওএমসি লিমিটেড, ঢাকা) নামের একটি প্রতিষ্ঠান একমাত্র দরদাতা। প্রতিষ্ঠানটি মালয়েশিয়া থেকে এই সয়াবিন সরবরাহ করবে। এজন্য প্রতিষ্ঠানটি ২ লাখ ৯৭ হাজার ডলারের ব্যাংক গ্যারান্টি জমা দিয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাম ১.১০১ মার্কিন ডলার উল্লেখ করেছে। তবে প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাপ্তরিক প্রাক্কলিত দর ১.২৭ মার্কিন ডলার। সূত্র জানায়, দরপত্র মূল্যায়ন কমিটির সভা গত ২ মে অনুষ্ঠিত হয়। মূল্যায়ন কমিটি কর্তৃক প্রাপ্ত দরপত্রটি রেসপনসিভ বিবেচিত হয়। দরপত্র মূল্যায়ন কমিটি রেসপনসিভ দরদাতা অ্যাকসেনচ্যুয়েট টেকনোলজি ইনকরপোরেশন এর মালয়েশিয়া উৎসের এক কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল ২ লিটার পেট বোতলে প্রতি লিটার এর প্রস্তাবিত দর সিএফআর(সি)/সিপিটি পর্যন্ত ১.১০১ মার্কিন ডলার মূল্যে ক্রয়ের সুপারিশ করা হয়। মূল্যায়ন কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ক্রয় মূল্য দাপ্তরিক প্রাক্কলিত দরের চেয়ে (১.২৭-১.১০১)=০.১৬৯ ডলার কম। সূত্র জানায়, দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে মূল্যায়ন কমিটির সুপারিশে গত ২ মে টিসিবি থেকে অনুমোদন দেওয়া হয়। এ অবস্থায় এক কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল আমদানিতে মোট ব্যয় হবে এক কোটি ২১ লাখ ১১ হাজার মার্কিন ডলার সমপরিমাণ বাংলাদেশি মুদ্রায় ১২৯ কোটি ৫৮ লাখ ৭৭ হাজার টাকা। প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাম হবে ১৪০.১৬ টাকা। এ সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাবে অনুমোদনের জন্য অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠেয় সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির পরবর্তী সভায় উপস্থাপন করা হতে পারে বলে সূত্র জানিয়েছে।