আজকের দিন তারিখ ১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ফ্যাশন যত্নে রাখুন আপনার কসমেটিকস

যত্নে রাখুন আপনার কসমেটিকস


পোস্ট করেছেন: admin | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ১, ২০১৬ , ২:৩৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: ফ্যাশন


i17786অনলাইন ফ্যাশন ডেস্ক: কসমেটিকস বা প্রসাধনী আপনাকে সুন্দর করে তুলবে নিঃসন্দেহে। কিন্তু সেই প্রসাধনীরও যত্ন চাই। তা না হলে হিতে বিপরীত হওয়ার আশংকা রয়েছে। কসমেটিকস কেনার সময় যেমন আপনি এর মান যাচাই করেন, তেমনি সেগুলো ভালো রাখার জন্যও যত্নের প্রয়োজন। কসমেটিকস রাখতে হয় শুষ্ক ও স্বাভাবিক তাপমাত্রায়। খেয়াল রাখতে হয়, এর মেয়াদ উত্তীর্ণ তারিখের দিকেও। বৃষ্টির দিনে কসমেটিকসে ফাঙ্গাস পড়ে যায়। এ রকম হলে সে কসমেটিকস ব্যবহার না করাই ভালো।

কারণ ফাঙ্গাস পড়া প্রসাধনী ত্বকের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এ সময়ে তাই কসমেটিকস বিশেষ যত্নে সংরক্ষণ করতে হয়। কনটেইনারের মুখ ভালো করে বন্ধ রাখবেন। যেন বাতাস ঢুকতে না পারে। কসমেটিকস কিনে অনেক দিন ফেলে রাখবেন না, বরং সেগুলো ব্যবহার করুন। তা না হলে নতুন কসমেটিকসই হয়তো মেয়াদ ফুরিয়ে বাতিল হয়ে যাবে। কোন প্রসাধনী কত দিন ব্যবহার করতে পারবেন, সেটা নির্ভর করে প্রসাধনীর ধরনের ওপর। কিছু প্রসাধনী আছে, যা অনেক দিন পর্যন্ত ব্যবহার করা যায়।

আবার কিছু আছে, যা তাড়াতাড়িই বদলে ফেলতে হয়। যেমনÑ লিপস্টিক, লিপলাইনার, মাশকারা, ফেসপাউডার, ফাউন্ডেশন, পেনকেক, ব্লাশঅন ইত্যাদি কেনার পর এক বছরের বেশি ব্যবহার করা উচিত নয়।

আবার শ্যাম্পু, তেল, লোশন ইত্যাদি টানা দুই বছর ব্যবহার করা যায়। লাইনারজাতীয় প্রসাধনীগুলো শুকিয়ে গেলে ব্যবহার না করাই উচিত।

কারণ এগুলো থেকে ইনফেকশন হতে পারে। চোখে ব্যবহারের প্রসাধনী বুঝেশুনে কিনতে হয়। কোনো কোনো প্রসাধনী থেকে অ্যালার্জির সমস্যা হতে পারে। প্রসাধনী একসঙ্গে খুব বেশি কেনা উচিত নয়, যা প্রয়োজন তাই কেনা ভালো। অনর্থক কিনে জমিয়ে রাখা প্রসাধনী অনেক সময় ফেলে দিতে হয়। এটা শুধু অপচয়ই নয়, প্রিয় প্রসাধনী ফেলে দেওয়ার কষ্টও তো কম নয়!