আজকের দিন তারিখ ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয় নেভাল একাডেমিতে নবীন কর্মকর্তাদের রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ

নেভাল একাডেমিতে নবীন কর্মকর্তাদের রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ


পোস্ট করেছেন: admin | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ১, ২০১৬ , ৪:২৬ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়


Naval-Academকাগজ অনলাইন প্রতিবেদক: চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে মিডশিপম্যান ২০১৪-বি ব্যাচের নবীন কর্মকর্তাদের গ্রীষ্মকালীন রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (১ জুন) নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল নিজামউদ্দিন আহমেদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও আকর্ষণীয় মার্চপাস্টের সালাম গ্রহণ করেন।

পরে তিনি কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জনকারী নবীন কর্মকর্তাদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

এ কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ২০১৪-বি ব্যাচের ৪১ জন মিডশিপম্যান কমিশন লাভ করলেন। এদের মধ্যে ৩ জন প্যালেস্টাইনি মিডশিপম্যান রয়েছেন।

মিডশিপম্যান ২০১৪-বি ব্যাচের মো. নাজমুল হোসাইন দুই বছর মেয়াদী কমিশন পূর্ব প্রশিক্ষণে সব বিষয়ে সর্বোচ্চ মান অর্জন করে সেরা চৌকস মিডশিপম্যান হিসেবে ‘সোর্ড অব অনার’ লাভ করেন। এছাড়া, মিডশিপম্যান মো. তানজীম রাহাত প্রশিক্ষণে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মান অর্জনকারী হিসেবে ‘বীরশ্রেষ্ঠ রহুল আমিন স্বর্ণপদক’ এবং মিডশিপম্যান মো. সাব্বির হোসেন তৃতীয় সর্বোচ্চ মান অর্জনকারী হিসেবে ‘নৌ প্রধান স্বর্ণপদক’ লাভ করেন।Naval-Acad

কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠান শেষে সদ্য কমিশনপ্রাপ্ত নবীন কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে নৌবাহিনী প্রধান তরুণ প্রজন্মের কর্মকর্তাদের দেশরক্ষার মহান কর্তব্যে আত্মনিয়োগ করে এগিয়ে যাওয়ার আহবান জানান।

তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীনতার স্থপতি ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর অসামান্য অবদানের কথা গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন। একইসঙ্গে স্মরণ করেন স্বাধীনতা সংগ্রামে অংশগ্রহণকারী বীর নৌসেনা ও মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারের কথাও।

অ্যাডমিরাল নিজামউদ্দিন আহমেদ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শিতা এবং পরবর্তীতে বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে নৌবাহিনী আজ একটি ত্রিমাত্রিক ও যুগোপযোগী বাহিনী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে।

তিনি ভারত ও বাংলাদেশের সঙ্গে সমুদ্রসীমা নির্ধারণের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শিতা ও অসামান্য নেতৃত্বের কথা উল্লেখ করেন।

কুচকাওয়াজে নৌ সদর দপ্তরের পিএসওগণ, চট্টগ্রাম নৌ অঞ্চলের সকল নৌ প্রশাসনিক কর্তৃপক্ষ, চট্টগ্রাম অঞ্চলের সেনা ও বিমান বাহিনীর উর্ধ্বতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা, দেশি-বিদেশি কূটনীতিক, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি, মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী নৌ কমান্ডো এবং শিক্ষা সমাপনী ব্যাচের কর্মকর্তাদের অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।