আজকের দিন তারিখ ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয় চিকিৎসা সেবা আইন আসছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

চিকিৎসা সেবা আইন আসছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী


পোস্ট করেছেন: admin | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ১, ২০১৬ , ৩:৩৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়


prosantaঅনলাইন প্রতিবেদক : খুব শীঘ্রই চিকিৎসা সেবা আইন-২০১৬ আসছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।
বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েসন (বিএমএ) অডিটরিয়ামে বুধবার আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান। ৩৪তম বিসিএম (স্বাস্থ্য) ও বিসিএস (পরিবার
পরিকল্পনা) ক্যাডারের কর্মকর্তাদের যোগদান উপলক্ষে নবীণ বরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘খুব শীঘ্রই চিকিৎসা সেবা আইন-২০১৬ আসছে, যেখানে চিকিৎসক ও রোগেীদের স্বার্থ সংরক্ষিত থাকবে।’

‘ডাক্তারদের পদায়ন ও প্রমোশনের ব্যাপারে কোন তদবীরে কাজ হবে না’ উল্লেখ করে নবনিযুক্ত ডাক্তারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আমি যখন স্বাস্থ্যমন্ত্রী তখন শুধু সবার স্বাস্থ্যমন্ত্রী, এখানে কোন রাজনীতি নাই। ডাক্তারদের পদায়নে কোন রাজনৈতিক পরিচয়ে কাজ হবে না। আওয়ামী লীগের পরিচয় দিলে তাকে সবচেয়ে খারাপ জায়গায় পোস্টিং দেওয়া হবে। ডাক্তারদের পদায়ন ও প্রমোশনে আমি কোন আপস করি না।’

‘নতুন ২০০ জন ডাক্তারকে আজ বরণ করে নেওয়া হলো’ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সকলের পদায়ন হবে নিজের জেলাতে। আপনাদের প্রথম কাজ হবে নিজের গ্রাম-জেলায় রোগীদের সেবা দেওয়া।’

‘শুধুমাত্র ঢাকা বিভাগের নিয়োগ পাওয়া ৬০ জনকে সাময়িকভাবে অন্যত্র নিয়োগ দিতে হচ্ছে। কারণ এখানে পদ খালি নেই’ বলেন তিনি।
‘শুধুমাত্র স্বামী-স্ত্রীদের এক জায়গাতে নিয়োগ দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। এ নিয়োগ নিয়ে অতীতেও কোন তদবির শুনিনি, ভবিষ্যতেও কোন তদবিরে কাজ হবে না।’

‘সকল ডাক্তারদের মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি থাকাতে হবে’ উল্লেখ করে মন্ত্রী আরো বলেন, ‘একটি মানবিক হাত দরকার, যে হাত রোগীকে আপন মানুষের মত সেবা করবে। কাজে ভুল-ত্রুটি থাকেতে পারে কিন্তু ইচ্ছেটা যেন ভুল না হয়।’

এই সরকারের সময় ১৩ হাজার নতুন ডাক্তারদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘নার্স সংকট নিরসনে শীঘ্রই সাড়ে তিন হাজার নার্স নিয়োগ দেওয়া হবে। পর্যায়ক্রমে সাড়ে ১৩ হাজার নতুন নার্স নিয়োগ দেওয়া হবে।’

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব সৈয়দ মঞ্জুরলি ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক দীন মোহাম্মদ নুরুল হক, বিএমএ’র মহাসচিব এম ইকবাল আর্সনাল, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) মহাসচিব অধ্যাপক ডা. আব্দুল আজিজ প্রমুখ।