আজকের দিন তারিখ ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ধর্ম ও জীবন ইসলামি আইনে চলবে মালয়েশিয়া!

ইসলামি আইনে চলবে মালয়েশিয়া!


পোস্ট করেছেন: admin | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ৫, ২০১৬ , ১২:৫৫ অপরাহ্ণ | বিভাগ: ধর্ম ও জীবন


Islami-Ainঅনলাইন ধর্ম ডেস্ক: দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার উন্নয়নশীল দেশ মালয়েশিয়া। এ দেশের রাজ্যসমূহে ইসলামি শরিয়া আইন বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া দীর্ঘ দিনের। যা বাস্তবায়নে বড় বাধা দেশটির ফেডারেল আইন। যেখানে শরিয়া আইন বিধিবদ্ধ নয়।

ইতিমধ্যে মালয়েশিয়ার প্রধান বিরোধীদল প্যান মালয়েশিয়ান ইসলামিক পার্টির প্রেসিডেন্ট আবদুল হাদি আওয়াং দেশটিতে ইসলামি দণ্ডবিধি ব্যবস্থা বাস্তবায়নের প্রস্তাব সংসদে উপস্থাপন করেছেন। গত সপ্তাহে সংসদে প্রধান বিরোধী দলের প্রস্তাব উপস্থাপনের পর গুরুত্বপূর্ণ এ বিলটিতে সমর্থন জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার ক্ষমতাসীন দল ইউনাইটেড মালয়স ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন (উমনো)। খবর সিএনএন।

প্রকাশ থাকে যে, ইসলামি দণ্ডবিধির ইসলামি পরিভাষা হচ্ছে হুদুদ। আর প্রস্তাবিত বিলটিতেও রয়েছে হুদুদ। এ বিলটি নিয়ে আগামী অক্টোবরে সংসদে বিতর্ক হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে খবরে বলা হয়েছে। প্রস্তাবিত বিলটি পাস হলে মালয়েশিয়ায় আলাদা শরিয়া আইনেরও আর প্রয়োজন হবে না।

মালয়েশিয়ার রাজনৈতিক বিশ্লেষকগণ প্রস্তাবিত হুদুদ বিলটি সংসদে পাস হবে না বলে মতামত ব্যক্ত করেছেন। তাদের মতে, আইনটি সংসদে পাস করতে হলে দুই-তৃতীয়াংশ এমপির সমর্থনের প্রয়োজন হবে। যা ক্ষমতাসীন উমনোর নেতৃত্বাধীন জোটের নেই। যদিও তারা বিলটি পাস করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণে চেষ্টা করছে।

খবরে আরো জানা যায় যে, ক্ষমতাসীন জোটের অন্যান্য দলগুলো প্রস্তাবিত ইসলামি দণ্ডবিধি ব্যবস্থা বিলের সমালোচনা করেছেন। তারা কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন যে, মালয়েশিয়ার মতো বহুজাতিক দেশে এ বিলটি পাস হলে তিক্ততা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক এ প্রস্তাবিত বিলটি নিয়ে বলেছেন, ‌শুধুমাত্র কিছু অপরাধের শাস্তি বাড়ানোর চিন্তা করা হচ্ছে। তা শরিয়া আদালতে শুধুমাত্র মুসলমানদের ওপরই প্রয়োগ করা হবে। এতে কারো বিভ্রান্ত হওয়ার কারণ নেই। অন্যান্য বিরোধী দলের সমালোচনার জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।