আজকের দিন তারিখ ২৮শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
স্পোর্টস, স্পোর্টস লীড ইংল্যান্ডের কাছে রোনালদিনহোদের হার

ইংল্যান্ডের কাছে রোনালদিনহোদের হার


পোস্ট করেছেন: admin | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ৬, ২০১৬ , ১২:১৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: স্পোর্টস,স্পোর্টস লীড


Socceঅনলাইন স্পোর্টস ডেস্ক: সকার এইড ইভেন্টের শিরোপা পুনরুদ্ধার করেছে ইংল্যান্ড। দশজনের দলে পরিণত হয়েও বিশ্ব একাদশকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে ইংলিশরা। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ চ্যারিটি ম্যাচটিতে এগিয়ে থেকেও পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন রোনালদিনহোরা।

সকার এইড একটি ব্রিটিশ চ্যারিটি ইভেন্ট। দু’বছর পর পর এটি অনুষ্ঠিত হয়। লক্ষ্য যুক্তরাজ্যে শিশুদের দাতব্য সংস্থা ইউনিসেফের জন্য তহবিল সংগ্রহ করা। সাবেক ও বর্তমান ফুটবলারদের পাশাপাশি সেলেব্রিটিরাও এতে অংশ নেন। এবারের আসর থেকে ৫.৪ মিলিয়ন পাউন্ডের বেশি তহবিল সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

২০০৬ সাল থেকে সকার এইডের যাত্রা শুরু। এ নিয়ে চারবার শিরোপা জিতলো ইংল্যান্ড। গত আসরে ইংলিশদের ৪-২ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হয় বিশ্ব একাদশ। ২০১০ সালের ইভেন্টটি ২-২ সমতায় নিষ্পত্তি হয়েছিল।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে ম্যাচ উপভোগ করেন নবনিযুক্ত ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কোচ হোসে মরিনহো। প্রথমার্ধে দু’দলের কেউই গোলের দেখা পাননি। দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর পাঁচ মিনিটের মাথায় চোখ ধাঁধানো ফ্রি-কিকে স্বাগতিকদের লিড এনে দেন সাবেক ফুটবলার ও ইংলিশ টেলিভিশন উপস্থাপক মার্ক রাইট।

কিন্তু, ৫৬ ও ৫৯ মিনিটে জোড়া গোল করে বিশ্ব একাদশকে লিড এনে দেন সাবেক ম্যানইউ তারকা দিমিত্রি বারবাতভ। দ্বিতীয়ার্ধে টিভি উপস্থাপক বেন শেফার্ড দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে দশজনের দলে পরিণত হয় ইংল্যান্ড।

তবে শেষ পর্যন্ত ইংলিশরাই শেষ হাসি হাসে। পিছিয়ে পড়ার ছয় মিনিট বাদেই দলকে সমতায় ফেরান বদলি হিসেবে নামা জার্মেইন ডিফো। এর এগার মিনিট পরেই হয়ে জয়সূচক গোলটিও করেন সান্ডারল্যান্ডের ৩৩ বছর বয়সী এ ইংলিশ ফরোয়ার্ড।

লিচেস্টার সিটিকে ইংলিশ লিগের চ্যাম্পিয়ন করার কারিগর ক্লদিও রানিয়েরি চ্যারিটি ম্যাচে এসে ব্যর্থ হন! এ ম্যাচটিতে তিনি বিশ্ব একাদশের কোচ ভূমিকায় ছিলেন। রোনালদিনহো ছাড়াও এ টিমে খেলেন তারই স্বদেশী কাফু, গোলরক্ষক ডিডা, ইতালির বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক ফ্যাবিও ক্যানাভারো, বুলগেরিয়ার দিমিত্রি বারবাতভ, ক্যামেরুন তারকা স্যামুয়েল ইতো।

গোল ও হাইলাইটস:
https://youtu.be/9inxTTaiNyc