আজকের দিন তারিখ ২১ অক্টোবর, ২০২০, মঙ্গলবার, ৫ কার্তিক, ১৪২৭
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয় ৩০ মিনিট লাইভের জন্য ২ লাখ !

৩০ মিনিট লাইভের জন্য ২ লাখ !


পোস্ট করেছেন: dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ২৫, ২০২০ , ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়


দিনের শেষে প্রতিবেদক : ৩০ মিনিটের জন্য দুই লাখ! তাও আবার একটি প্রতিষ্ঠানের ফেসবুক পেইজে লাইভে থাকবেন সে জন্য। আর তা চেয়ে রীতিমত অবাক করেছেন বাংলাদেশ দলের একজন সাবেক ক্রিকেটার। সম্প্রতি ইউনাইটেড গ্রুপ অব বাংলাদেশ (ইউজিবি) দেশের করোনা ও বন্যাসহ সার্বিক অবস্থা এবং অসহায় মানুষের দুর্ভোগ এইসব নিয়ে আলোচনার জন্য একটি ‘ফেসবুক লাইভ’ করার চিন্তা করেন এবং সেই লাইভে অতিথি হিসাবে যোগ দেয়ার জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের একজন সাবেক খেলোয়ারের সাথে যোগাযোগ করেন। এর ফলশ্রুতিতে সেই খেলোয়াড়ের ম্যানেজার ৩০ মিনিট লাইভের জন্য প্রথমে ২ লক্ষ টাকা দাবি করেন । টাকার বিষয়টা বিবেচনা করতে বললে; ক্রিকেটারের ম্যানেজার বলেন দেড় লক্ষ টাকার কমে হবে না। এই ঘটনায় ইউজিবি’র চেয়ারম্যান বি. খন্দকার অনেকটা আশ্চর্য হয়ে তার ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তিনি বলেন, আসলে আমি আগে বুঝিনি বাংলাদেশের সো কলড সেলিব্রিটিরা এতটা অভাবী এবং অসহায় যে ৩০ মিনিটের জন্য ২ লক্ষ টাকা চাইতেও মুখে বাধে না… আসলে আমার নিজের অর্থ দিয়ে আমি আমার জায়গা থেকে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য চেষ্টা করে চলেছি। কিন্তু বাস্তবতা হলো ইউজিবি’র একার পক্ষে সব অসহায়দের কাছে যাওয়া সম্ভব না। সবাই যদি তাদের নিজের জায়গা থেকে চেষ্টা করে তাহলেই এই দুর্যোগ মোকাবেলা করা সম্ভব। যেহেতু ক্রিকেট বাংলাদেশের মানুষের প্রানের খেলা এবং এই করোনার সময়ে অনেক ক্রিকেটার অসহায়দের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে তাই ভেবেছিলাম একজন ক্রিকেট প্লেয়ারকে লাইভে অতিথি করে নিয়ে আসবো। ভেবেছিলাম একটা ক্রিকেট প্লেয়ার সবাইকে অসহায়দের সহায়তায় এগিয়ে আসতে বললে অনেকেই উৎসাহিত হবেন। কিন্তু উনার সাথে যোগাযোগ করে বুঝলাম উনি নিজেই অনেক বেশি অসহায় এবং অভাবে আছেন। পরে আমি আর এই বিষয়ে কোনো কথা বাড়াইনি; কারন আমার কাছে মনে হয়েছে আমি ওনার মত খানদানি অভাবীকে ২ লক্ষ না ২০০ টাকা দেয়ার থেকে সেই টাকায় ২ জন অভুক্ত মানুষকে খাবার দিলে ভালো হবে। উল্লেখ্য- এই করোনা মহামারী শুরুর সময় থেকে ইউজিবি দেশের অসহায় মানুষের সাহায্যে বিভিন্ন কার্যক্রম সফলতার সাথে করে আসছে। ইউজিবি বর্তমান বন্যা কবলিত এলাকার মানুষের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে।