আজকের দিন তারিখ ১৪ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ৩১শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বিনোদন সমকামী হওয়ায় …

সমকামী হওয়ায় …


পোস্ট করেছেন: dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: মে ২, ২০২১ , ১১:২২ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: বিনোদন


দিনের শেষে ডেস্ক : উন্মুক্ত পিঠের ওপর ঘন কালো চুলের ঢেউ মনে করিয়ে দেয় কুচবরণ কন্যার গল্প। পরনে সাদা শাড়ি, ডিপ নেক ব্লাউজ। সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলছেন সীমা ভাবি ওরফে অন্বেষী জৈন। পরিসংখ্যান বলছে, টানা তিন বছর ধরে গুগল ইঞ্জিনে সবচেয়ে বেশি সার্চ হয়েছে তাঁরই নাম। বুধবার রাতে ইনস্টাগ্রামে তাঁর অনুসারীর সংখ্যা চার লাখ পেরিয়ে গেছে। এর পরেই বিস্ময় প্রকাশ করে নায়িকা লিখলেন, ‘ওহ মাই গড! আমি আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ থাকব।’

একতা কাপুরের ‘গন্দি বাত ২’ সিরিজের মাধ্যমেই পর্দায় আত্মপ্রকাশ। সীমা ভাবির ভূমিকায় নজর কেড়েছিলেন দর্শকের। তার মোহময়ী রূপ এবং লাস্যময়ী অন্দাজের দুর্দান্ত কম্বিনেশন আজও ভোলেননি দর্শকরা। ২০১৯ সালে মোস্ট গুগলড স্টারের তকমা পেয়েছিলেন। সেই স্থান ধরে রেখেছেন আজও।

জানা গেছে, প্রতি ১০ জনের মধ্যে সাতজন তাঁর নাম সার্চ করে থাকেন। ইরোটিক সিরিজ দিয়েই কেরিয়ারের শুরু বলেই কি এত জনপ্রিয়তা? এই প্রশ্নের সরাসরি কোনো উত্তর দেননি নায়িকা। তবে হেসে একবার বলেছিলেন, ‘ফ্লোরাকে চুমু খাওয়াটাই আমার জীবনের সবচেয়ে বড় অ্যাডভেঞ্চার।’

জন্ম মধ্যপ্রদেশের খাজুরাহে। সেখানেই বড় হয়ে ওঠা। এক সাক্ষাৎকারে অন্বেষী জানিয়েছিলেন, বরাবরই টাইটানিক ছবি দেখতে ভালোবাসতেন তিনি। কেট উইন্সলেট হয়ে উঠেছিলেন তাঁর স্বপ্নের নায়িকা। এক সাক্ষাৎকারে নায়িকা বলেন, ‘আমি কেট হওয়ার স্বপ্ন দেখতাম। সেই কারণেই কম বয়সে মুম্বাইয়ে পালিয়ে আসি। স্ট্রাগল শুরু হয়।’

ক্যারিয়ারের শুরুটা কিন্তু সহজ ছিল না। আওয়ারগ্লাস ফিগার হওয়ায়, অনেক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল অন্বেষী জৈনকে। তবে ‘গন্দি বাত’-এ শিকে ছিঁড়ল ভাগ্যে। তবে অভিনেত্রী বুঝতে পারেননি যে সুদূর খাজুরাহতেও পৌঁছবে ওই উষ্ণ সিরিজের আঁচ। সমকামীর ভূমিকায় তাঁকে অভিনয় করতে দেখে নাকি ভীষণ রেগে গিয়েছিলেন অন্বেষীর বাবা।

এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী বলেছিলেন, ‘যখন বাবার ফোন এসেছিল, তখন আমি জিমে ছিলাম। তাঁর তিরস্কার শুনে আমার চোখে জল চলে এসেছিল। কাঁদতে কাঁদতে মুম্বাইয়ের রাস্তা ধরে ছুটেছিলাম।’ তাঁর আক্ষেপ, ‘বাবা আমাকে বুঝলেন না, এটা ভেবেই দুঃখ হয়েছিল। আমি পরে ফোন করব বলে লাইন কেটে দিয়েছিলাম। পরে অবশ্য একপাতার চিঠি লিখেছিললাম। উত্তর আসেনি।’

তবে তিনি হার মানেননি। নায়িকার কথায়, ‘আমি যেটুকু করেছি নিজের প্রতিভার জোরে। বাড়ি, গাড়ি, লাইফস্টাইল সব নিজে করেছি। ওই সিরিজে অভিনয় না করলে এতটা পারতাম না। তাই কোনো আফসোস নেই।’

প্রসংগত, বর্তমানে অভিনয়ের পাশাপাশি নিজের ডেটিং এক্সপার্ট হিসেবে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন অন্বেষী। তাঁর নিজস্ব অ্যাপে সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যাও প্রচুর।