আজকের দিন তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, শুক্রবার, ১৩ ফাল্গুন, ১৪২৭
সর্বশেষ সংবাদ
সারাবিশ্ব রাশিয়ায় বিরোধীদের বিক্ষোভে গণগ্রেপ্তার

রাশিয়ায় বিরোধীদের বিক্ষোভে গণগ্রেপ্তার


পোস্ট করেছেন: dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২১ , ১১:৩৮ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: সারাবিশ্ব


দিনের শেষে ডেস্ক :  রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কট্টর সমালোচক অ্যালেক্সি নাভালনির সমর্থনে মঙ্গলবারের বিক্ষোভ থেকে প্রায় এক হাজার ৪০০ জনকে আটক করা হয়েছে। দেশটিতে মানবাধিকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণকারী একটি সংস্থা এ তথ্য দিয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। বিভিন্ন ফুটেজে মস্কোতে দাঙ্গা পুলিশকে বিক্ষোভকারীদের ওপর লাঠি হাতে হামলে পড়তে দেখা গেছে। এর আগে স্থগিত সাজার শর্ত লংঘনের দায়ে ৪৪ বছর বয়সী নাভালনিকে সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ড দেয় মস্কোর একটি আদালত।

গত বছরের অগাস্টে নার্ভ এজেন্ট ‘নোভিচক দিয়ে হত্যাচেষ্টা’ থেকে বেঁচে যাওয়ার পর জার্মানিতে কয়েক মাসের চিকিৎসা শেষে ১৭ জানুয়ারি দেশে ফেরেন নাভালনি; সেদিনই গ্রেপ্তার হন তিনি। অর্থ আত্মসাতের মামলায় স্থগিত দণ্ড চলাকালে নাভালনির নিয়মিত পুলিশের কাছে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল, যা তিনি লংঘন করেছেন বলে অভিযোগ। শর্ত লংঘনের দায়ে এখন স্থগিত ওই দণ্ডই কারাদণ্ডে রূপান্তরিত হয়েছে।

এ মামলাটিকে ‘সাজানো’ দাবি করা নাভালনি তাকে ‘নোভিচক’ দিয়ে হত্যাচেষ্টার দায়ও পুতিনকে দিয়েছেন। রুশ প্রেসিডেন্টকে ‘বিষ প্রয়োগকারী’ বলে অভিহিত করেছেন তিনি। নাভালনির এই অভিযোগ ক্রেমলিন শুরু থেকেই অস্বীকার করে আসছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র নাভালনিকে কারাদণ্ড দেওয়ার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। রাশিয়ার এ সরকারবিরোধী নেতাকে অবিলম্বে মুক্তি দেওয়ারও দাবি জানিয়েছে তারা।

নাভালনির স্থগিত দণ্ড পুনর্বহালের রায়ের পর মঙ্গলবারই মস্কোর কেন্দ্রস্থলে তার কয়েকশ সমর্থক জড়ো হয়। কিছু সময় পর রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা পরিণত হয় রণক্ষেত্রে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওগুলোতে নাভালনিকে সমর্থন জানানো আন্দোলনকারীদের ওপর পুলিশের হামলা ও ধরপাকড়ের দৃশ্য দেখা গেছে।

রাশিয়ার ওভিডি-ইনফো মানবাধিকার পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা মঙ্গলবার কেবল মস্কোতেই এক হাজার ১১৬ জনকে আটক করার খবর দিয়েছে; রাশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর সেইন্ট পিটার্সবার্গ থেকে আটক করা হয়েছে আরও ২৪৬ জনকে। ছোট ছোট কয়েকটি শহর থেকে নাভালনির আরও ১৫ সমর্থককেও আটক করা হয় বলে জানিয়েছে তারা। আটকের সংখ্যা নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে রুশ কর্তৃপক্ষের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।