আজকের দিন তারিখ ২৮শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লাইফ স্টাইল যে চা পান করলে বাড়বে আয়ু, সারবে কঠিন রোগ!

যে চা পান করলে বাড়বে আয়ু, সারবে কঠিন রোগ!


পোস্ট করেছেন: delwer master | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ৫, ২০২২ , ১০:২৪ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: লাইফ স্টাইল


দিনের শেষে ডেস্ক : বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় পানীয় হলো চা। এটি পান করতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। সকালে ঘুম থেকে উঠেই এক মগ চা হাতে নিয়ে বসেন অনেকেই। চায়ের আছে অনেক স্বাস্থ্যগুণ। তবে অতিরিক্ত চা পান করা আবার স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়। আবার চায়ের মধ্যেও আছে বিভিন্ন ধরন। সব ধরনের চা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়। তবে এমনও কিছু চা আছে যা প্রতিদিন পান করলে মন ও শরীর দুটোই ভালো থাকে। এমনকি চা আপনাকে দীর্ঘায়ু করতে ও বিভিন্ন রোগ থেকে বাঁচাতেও পাবে। গবেষণা বলছে, বিশেষ কিছু চা আছে, যেগুলো নিয়মিত পান করলে দীর্ঘ জীবন উপভোগ করা যায় ও দীর্ঘস্থায়ী রোগ হওয়ার ঝুঁকিও কমে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কোন কোন চা স্বাস্থ্যের জন্য বেশি উপকারী-

সবুজ চা

সবুজ চায়ের ওষুধি গুণ সম্পর্কে সবারই কমবেশি ধারণা আছে। গ্রিন টি’তে ক্যাটেচিন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। যা প্রদাহ কমায়, ক্যানসার, টাইপ ২ ডায়াবেটিস ও কার্ডিওভাসকুলার রোগ দূর করে। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরে থাকে বিপজ্জনক প্রোটিন ফলকগুলোকেও ভেঙে দেয়। ফলে অ্যাথেরোস্ক্লেরোসিস হওয়ার ঝুঁকি কমে, যা রক্ত জমাট বাঁধায় স্ট্রোকের ঝুঁকির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই নিয়মিত সবুজ চা পান করা উচিত সবারই।

ক্যামোমাইল চা

ক্যামোমাইল চা একটি শক্তিশালী পানীয়, যা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্যে ভরপুর। এ চা শরীর ও মনকে শান্ত রাখে। ফলে ভালো ঘুম হয়। এমনকি এই চা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়। এটি স্নায়ুকে শান্ত করে ও হজম স্বাস্থ্যেরও উন্নতি ঘটায়। চায়ে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট কিছু ক্যানসারের বিরুদ্ধে লড়াই করে। গবেষণা দেখা গেছে, যারা নিয়মিত ক্যামোমাইল চা পান করেন তারা অন্যদের তুলনায় দীর্ঘ জীবন উপভোগ করেন।

আদা চা

যুগ যুগ ধরে আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়ে আসছে আদা। এতে আছে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদানসমূহ। আদা চা স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী। এই চা মোশন সিকনেস কাটায় দ্রুত।

আদা চায়ে জিঞ্জেরল নামক একটি যৌগ আছে, যা থেরাপির কাজ করে। ক্যানসার, রক্তচাপ ও ডায়াবেটিসের মতো রোগ থেকে রক্ষা করে আদায় থাকা গুনাগুণ। এমনকি ওজন কমাতেও সাহায্য করে আদা।

মেন্থল চা

পেপারমিন্ট চা হজমের জন্য উপকারী। এতে মেন্থল নামক একটি যৌগ থাকে, যা অন্ত্রের ট্র্যাক্টকে শিথিল করে ও ফোলাভাব দূর করে। এতে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিভাইরাল বৈশিষ্ট্যে থাকে।

যা ক্যানসারের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে। মেন্থল চা ইরিটেবল বাওয়েল সিনড্রোম (আইবিএস) এর বিভিন্ন লক্ষণ থেকেও স্বস্তি দেয়।

হিবিস্কাস চা

হিবিস্কাস চা রক্তচাপ কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। গবেষণা দেখা গেছে, যদি একজন ব্যক্তি ৬ সপ্তাহ ধরে একটানা হিবিস্কাস চা পান করেন, তাহলে তার রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। এই চা স্থূলতার বিরুদ্ধেও কাজ করে। এমনকি নন-অ্যালকোহলযুক্ত ফ্যাটি লিভারের সমস্যারও সমাধান করে এই চা। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্থোসায়ানিন বিভিন্ন রোগ যেমন- হৃদরোগ, ডায়াবেটিস ও ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়। আজ ৪ জুন, জাতীয় চা দিবস। দেশে দ্বিতীয়বারের মতো দিবসটি উদযাপন করা হচ্ছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় চা বোর্ডের উদ্যোগে দিবসটি উদযাপনের আয়োজন করা হয়েছে। এবারের প্রতিপাদ্য ‘চা দিবসের সংকল্প, সমৃদ্ধ চা শিল্প’।