আজকের দিন তারিখ ১ মার্চ, ২০২১, সোমবার, ১৬ ফাল্গুন, ১৪২৭
সর্বশেষ সংবাদ
স্পোর্টস মুশফিক এবারও আইপিএলে দল পেলেন না কেন?

মুশফিক এবারও আইপিএলে দল পেলেন না কেন?


পোস্ট করেছেন: Dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২১ , ১২:২৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: স্পোর্টস


দিনের শেষে প্রতিবেদক : ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ-আইপিএলে খেলার স্বপ্ন থাকে প্রায় সব ক্রিকেটারের। জমকালো আয়োজনে অর্থের ছড়াছড়ি থাকে এই টুর্নামেন্টে। বিশ্বের সেরা সেরা খেলোয়াড়রা মার মার কাট কাট এ খেলার অংশ হতে উদগ্রীব থাকে। আর সব তারকার মতো আইপিএল মঞ্চে নিজের জাত চেনাতে আগ্রহী ছিলেন বাংলাদেশের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমও। যে কারণে প্রথম আইপিএল থেকে ১৩তম সংস্করণ পর্যন্ত প্রতিটি আয়োজনে নিজের নাম নিলামে নথিভুক্ত করে গেছেন এ বাংলাদেশি তারকা। কিন্তু কখনই জায়গা পাননি। যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও তাকে কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি দলে ভেড়ায়নি। এ নিয়ে হৃদয়ের কোণে হতাশা-ক্ষোভ জমেছিল বিন্দু বিন্দু করে। অনেকটা অভিমান করে এবারের আইপিএলের নিলাম থেকে নিজেকে সরিয়ে রাখার সিদ্ধান্তও নিয়েছিলেন মুশফিক।
গত বছরই অনেকটা হতাশার সুরে মুশফিক বলেছিলেন– আইপিএলে দল পাওয়া না পাওয়ায় আমার হাতে নেই। আমাদের কাজ হলো ধারাবাহিক পারফরম করা। আইপিএলে দল পেলাম কী পেলাম না এ ব্যাপারে আমার মাথা ঘামানোর কিছু নেই। আইপিএল নিয়ে আমার কোনো মাথাব্যথা নেই। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে প্লেয়ার ড্রাফটে জায়গা পেয়েছিলেন মুশফিকের ৫ সতীর্থ। তার হলেন- সাকিব আল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাইফউদ্দিন ও সৌম্য সরকার। এদের মধ্যে ছিলেন না মুশফিক। নিলামের তালিকা চূড়ান্ত হওয়ার পরই বাদ পড়েন স্টাইলিশ ওপেনার সৌম্য। কিন্তু বৃহস্পতিবার বিকালে চেন্নাইয়ে নিলাম বসার আগে শেষ মুহূর্তে জানা যায়, চূড়ান্ত তালিকায় মুশফিকও রয়েছেন। হঠাৎ আইপিএলের নিলামে কী করে মুশফিকের নাম উঠে গেল সেটি নিয়ে এক ধরনের ধোঁয়াশা তৈরি হয়। ধোঁয়াশা তৈরি হলেও মুশফিকের নাম উঠায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন তার ভক্তরা। ভারতের সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শেষ মুহূর্তে এসে আইপিএল নিলামে নাম উঠায় অভিমান ভাঙে মুশফিকের। একই সময় ইংলিশ পেসার মার্ক উড নিলাম থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেন। ফলে মুশফিকের নাম উঠে নিলামে। তার ভিত্তিমূল্য ধরা হয় ১ কোটি টাকা। উইকেটরক্ষকদের মধ্যে মুশফিকের চেয়ে বেশি ভিত্তিমূল্যে আছেন শুধু ইংলিশ তারকা স্যাম বিলিংসের। তার ভিত্তিমূল্য দুই কোটি রুপি। যদিও পরে আর ভাগ্য সুপ্রসন্ন হয়নি মুশফিকের। অন্যান্য সব বারের মতো এবারও রহস্যজনক কারণে আইপিএলের ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর কাছে উপেক্ষিত মুশফিক। আইপিএল অধরাই রয়ে গেল।মুশফিকে কেন অনীহা আইপিএল ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর? বারবার নিলামে নথিভুক্ত করেও মুশফিককে কেন নেওয়া হয় না, এই প্রশ্ন ক্রীড়ামোদীদের মুখে মুখে। বাংলাদেশের এ নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যানের অভিজ্ঞতার ঝুলি অনেক বড়। চাপের মুখে ব্যাট চওড়া করে খেলে ম্যাচ বের করে আনার সামর্থ্য রয়েছে তার। তিন ফরম্যাট মিলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১২ হাজারি ক্লাবের সদস্য হয়েছেন ইতিমধ্যে। এ পর্যন্ত ৩৯টি অর্ধশতক ও ৭টি শতক হাঁকিয়ে ওয়ানডেতে জমা করেছেন ৬২৬৬ রান। আর টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটেও তার পারফরম্যান্স উল্লেখ করার মতো। এ পর্যন্ত ৭৭ ইনিংসে নেমে ১২০ স্ট্রাইক রেটে ১২৮২ রান সংগ্রহ করেছেন তিনি। যেখানে ৫টি ফিফটি রয়েছে। টি-টোয়েন্টিতে তার হাইয়েস্ট স্কোর ৭২ (নটআউট)। বিশ্বের সেরা সব উইকেটরক্ষকের মধ্যে মুশফিকের অবস্থান প্রথম সারিতে। এর পরও আইপিএলে মুশফিক বরাবরই উপেক্ষিত থাকছেন। অথচ মুশফিকের চেয়েও অনেক কম অভিজ্ঞতার বিদেশি খেলোয়াড় আইপিএলে দল পাচ্ছেন। ক্রীড়ামোদীদের মনে এ প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।