আজকের দিন তারিখ ১১ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
স্পোর্টস মাত্র ১৫১ রান করেও ইনিংস ব্যবধানে জয়

মাত্র ১৫১ রান করেও ইনিংস ব্যবধানে জয়


পোস্ট করেছেন: Dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: মার্চ ৩০, ২০২১ , ৩:০১ অপরাহ্ণ | বিভাগ: স্পোর্টস


দিনের শেষে প্রতিবেদক : অবিশ্বাস্য কাণ্ড ঘটল জাতীয় ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডে। সাভারের বিকেএসপিতে মাত্র ৪ সেশনেই শেষ হয়ে গেছে বরিশাল ও রাজশাহী বিভাগের মধ্যকার ম্যাচ। এক ইনিংসে মাত্র ১৫১ রান করেও ইনিংস ব্যবধানে জিতে গেছে তাইজুল ইসলাম, সানজামুল ইসলামদের রাজশাহী বিভাগ। সোমবার ম্যাচের প্রথম দিন বোলারদের দাপটে পতন ঘটেছিল ২১ উইকেটের। তিন স্পিনার তাইজুল ইসলাম, সানজামুল ইসলাম ও সোহাগ গাজী দেখিয়েছিলেন নিজেদের ভেলকি। তবু ধারণা করা যায়নি, আজ (মঙ্গলবার) দিনের প্রথম ও ম্যাচের চতুর্থ সেশনেই শেষ হয়ে যাবে খেলা। যেখানে ইনিংস ও ৯ রানের ব্যবধানে জিতেছে রাজশাহী।
টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নিজেদের প্রথম ইনিংসে মাত্র ৮২ রানে অলআউট হয়েছিল বরিশাল। সমান ৪টি করে উইকেট নেন তাইজুল ও সানজামুল, ডানহাতি পেসার মোহর শেখের ঝুলিতে জমা পড়ে ২ উইকেট। মাত্র ২৯.৩ ওভারের ইনিংসে বরিশালের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৮ রান করেন মঈন খান। প্রতিপক্ষকে অল্পে থামালেও, রাজশাহীও খুব বেশি করতে রান করতে পারেনি। স্বীকৃত ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় মাত্র ৮৬ রানেই ৮ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল তারা। যেখানে তানজিদ হাসান তামিমের একার অবদানই ৩৬ রান। সেখান থেকে দলকে দেড়শ পার করান তাইজুল ও জুনায়েদ সিদ্দিকী। নবম উইকেট জুটিতে তাইজুল ও জুনায়েদ মিলে যোগ করেন ৬২ রান। নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে ৪২ বলে ৩৭ রান করেন তাইজুল। আর শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে জুনায়েদ ফেরেন ইনিংসের সর্বোচ্চ ৪৩ রান করে। বরিশালের পক্ষে সোহাগ গাজী নেন ৬টি উইকেট। রাজশাহীর লিড দাঁড়ায় ৬৯ রানের। সোমবার দিনের শেষ ওভারে ৭ ওভার খেলে ২৩ রান করতে ১ উইকেট হারায় বরিশাল। ফলে আজ ৯ উইকেট হাতে নিয়ে ৪৬ রান পিছিয়ে থেকে খেলতে নামে তারা। কিন্তু এই ৪৬ রান আর করা হয়নি তাদের। আজ ২৭ ওভার খেলে ৩৭ রান তুলতেই বাকিসব উইকেট হারিয়েছে বরিশাল। অথচ একপর্যায়ে ২ উইকেটে ৫২ রান করে ফেলেছিল তারা। এরপর মাত্র ৮ রান তুলতেই বাকি ৮ উইকেট তুলে নেন তাইজুল ও সানজামুল। প্রথম ইনিংসে সমান ৪টি করে উইকেট নিলেও, দ্বিতীয় ইনিংসে সানজামুল ৬ ও তাইজুল নিয়েছেন ৪ উইকেট। তাদের ঘূর্ণিতে ১০.২ ওভারে মাত্র ৮ রানে শেষ ৮ উইকেট হারিয়েছে বরিশাল। দুই ইনিংস মিলে ৮ উইকেট ও ব্যাট হাতে ৩৭ রানের অমূল্য ইনিংস খেলে ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছেন তাইজুল ইসলাম। এই ম্যাচ থেকে রাজশাহী পেয়েছে ৯.৫ পয়েন্ট, বরিশাল পেয়েছে ১.৫ পয়েন্ট। এই ম্যাচে রেকর্ড হয়েছে দুইটি। ম্যাচের দুই ইনিংস মিলে মাত্র ১৪২ রান করেছে বরিশাল। যা কি না বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ম্যাচে সর্বনিম্ন সংগ্রহ। এর আগে ২০১১ সালে রাজশাহীর বিপক্ষে দুই ইনিংস মিলে ১৮০ রান করেছিল চট্টগ্রাম বিভাগ।
অন্যদিকে দুই ইনিংস মিলে মাত্র ৩৩ রান খরচায় ১০ উইকেট নিয়েছেন সানজামুল। বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এর চেয়ে কম রানে ম্যাচে ১০ উইকেট নেয়ার রেকর্ড আর কোনো বোলারের।