আজকের দিন তারিখ ১৩ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
/////হাইলাইটস///// বিশ্বে করোনায় পৌনে ২৯ লাখ মানুষের মৃত্যু

বিশ্বে করোনায় পৌনে ২৯ লাখ মানুষের মৃত্যু


পোস্ট করেছেন: Dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ৬, ২০২১ , ১:৫১ অপরাহ্ণ | বিভাগ: /////হাইলাইটস/////


দিনের শেষে ডেস্ক : বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের তাণ্ডব যেন থামছেই না। সবশেষ বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ কোটি ২৪ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। আর মৃতের সংখ্যা পৌনে ২৯ লাখ। ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় আজ মঙ্গলবার (০৬ এপ্রিল) বেলা ১২টা ১৯ মিনিট পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ কোটি ২৪ লাখ ৩৮ হাজার ৬৫৭ জনে। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২৮ লাখ ৭৪ হাজার ৩৪৪ জনের। আর এ পর্যন্ত করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১০ কোটি ৬৭ লাখ ৭০ হাজার ২৮০ জন। বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি যুক্তরাষ্ট্রে। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ১৪ লাখ ৯৬ হাজার ৯৭৬ জন। আর এই মহামারিতে দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৬৯ হাজার ২৮২ জনের।
যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যু বিবেচনায় করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ ব্রাজিল। আক্রান্ত ও মৃত্যু বিবেচনায় দেশটির অবস্থান দ্বিতীয়। লাতিন আমেরিকার এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ৩০ লাখ ২৩ হাজার ১৮৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৩৩ হাজার ১৫৩ জনের। মৃত্যু বিবেচনায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেশী মেক্সিকো তৃতীয় স্থানে আছে। আক্রান্ত বিবেচনায় দেশটির অবস্থান ১৪ নম্বরে। মেক্সিকোতে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২২ লাখ ৫১ হাজার ৭০৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৪ হাজার ৩৯৯ জনের।
আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় স্থানে থাকা ভারত মৃত্যু বিবেচনায় আছে চতুর্থ স্থানে। এ পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ২৬ লাখ ৮৬ হাজার ৪৯ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৬৫ হাজার ৫৭৭ জনের। মৃত্যুর দিক থেকে পঞ্চম ও আক্রান্ত বিবেচনায় ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে যুক্তরাজ্য। এখন পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৩ লাখ ৬২ হাজার ১৫০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ২৬ হাজার ৮৬২ জনের। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনা ভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।