আজকের দিন তারিখ ১৩ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অর্থ ও বাণিজ্য দেশের পুঁজিবাজারেও চালু হচ্ছে ডিজিটাল বুথ

দেশের পুঁজিবাজারেও চালু হচ্ছে ডিজিটাল বুথ


পোস্ট করেছেন: Dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: মার্চ ২৮, ২০২১ , ১১:১১ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: অর্থ ও বাণিজ্য


দিনের শেষে প্রতিবেদক : বিদেশের দুবাইতে ডিজিটাল বুথ চালুর পর এবার দেশের পুঁজিবাজারেও চালু হচ্ছে ডিজিটাল বুথ। আগামি ৩১ মার্চ প্রথমবারের মতো ডিজিটাল বুথ চালু করতে যাচেছ আইল্যান্ড সিকিউরিটিজ লিমিটেড। দেশের অভ্যন্তরে ডিজিটাল বুথ চালু করে ইতিহাস সৃষ্টি করতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।
জানা গেছে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) মাধ্যমে দেশের অভ্যন্তরে বরিশাল বিভাগের ভোলা জেলায় চলতি বছরের ৩১ মার্চ (বুধবার) এবং চট্টগ্রামের রাঙ্গামাটি জেলায় ৮ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) ডিজিটাল বুথ আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করবে আইল্যান্ড সিকিউরিটিজ লিমিটেড। পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) অনুমোদন সাপেক্ষে এই দুই জেলায় পৃথক ডিজিটাল বুথ চালু করতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়া ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মাধ্যমে সিরাজগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর, সাতক্ষীরা, ঝিনাইদহ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, সিরাজগঞ্জের উল্লাহপারা, নীলফামারীর সৈয়দপুর, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জসহ আরো বিভিন্ন জায়গায় ডিজিটাল বুথ খোলার জন্য আবেদন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। ডিএসই যাচাই-বাছাই শেষে বিএসইসি অনুমোদন দিলে ওইসব জেলায় বুথ খোলা হবে।
তথ্য মতে, ভোলা জেলায় ৩১ মার্চ ডিজিটাল বুথ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের প্রস্তুতি চলছে। ওই দিনই ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন শুরুর নির্ধারিত সময়ে অর্থাৎ সকাল ১০টায় বুথ থেকে লেনদেন কার্যক্রম শুরু করা হবে। তবে লেনদেন শুরুর আগের দিন অর্থাৎ ৩০ মার্চ (মঙ্গলবার) সন্ধ্যায় প্রশিক্ষণমূলক অনুষ্ঠান আয়োজনের মাধ্যমে ডিজিটাল বুথ উদ্বোধনের কার্যক্রম শুরু হবে। আইল্যান্ড সিকিউরিটিজের ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ভোলা জেলার মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির। এদিকে রাঙ্গামাটি জেলায় ৮ এপ্রিল ডিজিটাল বুথ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের প্রস্তুতি চলছে। নির্ধারিত সময়ে বুথটি থেকে লেনদেন কার্যক্রম শুরু করা হবে। ওই দিন সকাল ১০টায় রাঙ্গামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার আইল্যান্ড সিকিউরিটিজের ডিজিটাল বুথের উদ্বোধন করবেন।
আইল্যান্ড সিকিউরিটিজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ডিজিটাল বুথ চালু করার আগে ভবন ভাড়া নেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে ডিজিটাল বুথ পরিচালনার জন্য কর্মীও নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তবে ভবন ভাড়া ও কর্মী নিয়োগ দেওয়ার পর ডিজিটাল বুথ চালু করতে দুই থেকে তিন মাস সময় লাগে। বুথ অনুমোদন দেওয়ার সময় কমিয়ে আনলে ব্রোকারেজ হাউজগুলোর বাড়তি খরচ কম লাগতো।
এ বিষয়ে আইল্যান্ড সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বলেন,
চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে কক্সবাজার, রাঙ্গামাটি, ফটিকছড়ি ও ভোলা জেলায় ডিজিটাল বুথ খোলার জন্য আবেদন করা হয়েছে। ওই চারটি জায়গায় বুথ স্থাপনের অনুমোদন দিয়েছে বিএসইসি। তবে আপাতত পরীক্ষামূলকভাবে দু’টি জেলায় বুথ খোলার অনুমোদন দিয়েছে বিএসইসি। এরই ধরাবাহিকতায় আমরা চট্টগ্রামের রাঙ্গামাটি ও বরিশালের ভোলায় ডিজিটাল বুথ চালু করা সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ দু’টি বুথের পারফরমেন্স দেখে পরবর্তীতে কক্সবাজার ও ফটিকছড়িতে ডিজিটাল বুথ চালু করার অনুমোদন দেবে বিএসইসি।’