আজকের দিন তারিখ ১৮ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
স্পোর্টস ডোমিঙ্গোকে ছাটাইয়ের গুঞ্জন উড়িয়ে দিলেন সুজন

ডোমিঙ্গোকে ছাটাইয়ের গুঞ্জন উড়িয়ে দিলেন সুজন


পোস্ট করেছেন: Dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: মে ৬, ২০২১ , ২:০৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: স্পোর্টস


দিনের শেষে প্রতিবেদক : টানা ব্যর্থতায় মুষড়ে পড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট জাতীয় দল। দলের টালমাটাল পারফরমেন্সের প্রশ্নের সম্মুখীন প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর দায়িত্ব। গুঞ্জন রয়েছে, ‘ব্যর্থ কোচে’র ব্যাপারে বড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে দক্ষিণ আফ্রিকান গুরুকে দোষ দিতে নারাজ বাংলাদেশের সাবেক ক্রিকেটার ও শ্রীলঙ্কা সফরের টিম লিডার খালেদ মাহমুদ সুজন। জানিয়েছেন, বোর্ডে ডোমিঙ্গোকে বরখাস্ত করার কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। সুজনের দাবি, চেষ্টার কমতি ছিল না ডোমিঙ্গোর। ভাগ্যের দোষে ফল আসেনি দলের। জনপ্রিয় ক্রিকেট সংবাদমাধ্যম ক্রিকবাজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সুজন বলেন, ‘রাসেল ডোমিঙ্গোকে বলির পাঠা বানানো উচিত হবে না। দলের জন্য তার চেষ্টার কমতি ছিল না।
সে একটা বড় দলেরও (দক্ষিণ আফ্রিকা) কোচ ছিল।’ সুজন বলেন, ‘আমি বলব, এটা তার (ডোমিঙ্গো) দুর্ভাগ্য যে, অনেকবার হয়েছে। তবে এখনই কোনোকিছু বলার সময় আসেনি। আমি ও সঙ্গে একটা সিরিজে কাজ করলাম। নিজের মূল্যায়ন থেকে বলতে পারি, ও নিজের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করছে।’ বিভিন্ন সময়ে ভিন্ন ভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব নিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের সঙ্গে কাজ করেছেন সুজন। সেই অভিজ্ঞতা থেকে সুজন মনে করেন, ডোমিঙ্গোর উচিত ভাষাগত সমস্যা কাটিয়ে খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগ দক্ষতা বাড়ানো।
সুজন বলেন, ‘প্রথমে আমাদের ক্রিকেটারদের পরিকল্পনা জানাই, সেটি আবার দ্বিতীয়বার ডোমিঙ্গোকে বোঝাতে হহয়। সেটি বুঝে তার কাজ করতে হয়। ডোমিঙ্গো তো আর দক্ষিণ আফ্রিকায় কাজ করছে না, বাংলাদেশে কাজের ধরন বেশ আলাদা।
ডোমিঙ্গোকে বরখাস্ত করার গুঞ্জন নিয়েও কথা বলেন সুজন। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় না, বোর্ড ডোমিঙ্গোকে বাদ দেয়ার কোনো চিন্তা করছে। আমরা চাইলেই যে কাউকে কোচের আসনে বসিয়ে দিতে পারি না। এখানে অনেক বিষয় বিবেচনার থাকে। আমাদের বোঝা উচিত, দলের সাফল্য কিংবা ব্যর্থতার জন্য কোচ একা দায়ী নন। কোচকে দোষারোপ না করে কীভাবে সাফল্য আনা যায়, সেটি ভাবা উচিত।
২০১৯ এ ভারতের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে শুরু হয়েছিল বাংলাদেশের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ মিশন। সেই সিরিজে দুই ম্যাচ হেরে হোয়াইটওয়াশ দিয়ে শুরু। এরপর পাকিস্তান, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সবগুলোতেই হার। এরপর শ্রীলঙ্কায় দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটায় ড্র করলেও দ্বিতীয় ম্যাচে বড় পরাজয় বরণ করে টাইগাররা। টানা ৯ হারের মাঝে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে নাস্তানাবুদ হয় বাংলাদেশ।