আজকের দিন তারিখ ১৪ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ৩১শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সারাদেশ খুলনায় দূরপাল্লার যাত্রীরা ছুটছেন রেন্ট-এ-কারে

খুলনায় দূরপাল্লার যাত্রীরা ছুটছেন রেন্ট-এ-কারে


পোস্ট করেছেন: Dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: মে ৫, ২০২১ , ১:৩৬ অপরাহ্ণ | বিভাগ: সারাদেশ


খুলনা প্রতিনিধি : করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে বাস, লঞ্চ ও ট্রেন বন্ধ থাকলেও খুলনায় থেমে নেই মানুষের দূর যাত্রা। যাদের ব্যক্তিগত গাড়ি নেই তারা রেন্ট-এ-কার থেকে প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাস ভাড়া নিয়ে ছুটছেন গন্তব্যে। প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদ উদযাপন কিংবা প্রয়োজনের তাগিদে নানা উপায়ে তারা শহর ছাড়ছেন।
জানা যায়, মহানগরীর কেডিএ এভিনিউ, (বাংলাদেশ ব্যাংক কোয়ার্টারের সামনে), সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনালের কাছে ও রূপসা বাস স্ট্যান্ডে প্রতিদিন যাত্রীর অপেক্ষায় থাকে মাইক্রোবাস, মাহেন্দ্র। এগুলো এখন যাত্রী পরিবহনে বাসের বিকল্প হিসেবে কাজ করছে। আর এ সুযোগটাই কাজে লাগাচ্ছেন রেন্ট-এ-কার ব্যবসায়ীরা।
চলমান বিধি-নিষেধ আগামী ১৬ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। বিধি-নিষেধের মধ্যেই পড়েছে ঈদের ছুটি। কর্মজীবীদের কর্মস্থলে রাখতেই বিধি-নিষেধ ঈদ পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। বিধি-নিষেধে বন্ধ রয়েছে দূরপাল্লার বাস ও লঞ্চ ও ট্রেন। বাস বন্ধ হওয়ার কারণে প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাস চালকরা রাস্তার ওপর তাদের গাড়ি নিয়ে দাঁড়িয়ে যাত্রীর অপেক্ষায় করছেন। খুলনা থেকে বিভিন্ন শহরে বিভিন্ন রকমের ভাড়ায় পরিচালিত হয় প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাস।
বুধবার (৫ মে) সকালে কেডিএ এভিনিউর দিগন্ত রেন্ট-এ-কারের রাসেল হোসাইন রানা বলেন, দূরপাল্লার যাত্রায় এখন রেন্ট-এ-কার ভরসা। মানুষ যাচ্ছেন তবে গাড়ির তেমন একটা চাহিদা নেই। অন্যান্য সময় ঈদের আগে অনেক ট্রিপ হতো দিনে। কিন্তু এবার তেমন হচ্ছে না। করোনার কারণে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কেউ গাড়ি ভাড়া নিচ্ছেন না।
খুলনা জেলা বাস-মিনিবাস-কোচ মালিক সমিতির যুগ্ম-সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সোনা বলেন, রেন্ট-এ-কারের প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাস চলছে। আক্ষেপ করে তিনি বলেন, শুধু করোনার ভয়ে চলছে না বাস। যত করোনা শুধু বাসের মধ্যে।তিনি জানান, বৃহস্পতিবার (৬ মে) থেকে জেলার মধ্যে গণপরিবহন চলাচল শুরু হবে।