আজকের দিন তারিখ ৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সারাবিশ্ব ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন বিরুদ্ধে বিশ্ব নেতাদের নিন্দা

ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন বিরুদ্ধে বিশ্ব নেতাদের নিন্দা


পোস্ট করেছেন: dinersheshey | প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ২১, ২০২২ , ৪:৩৫ অপরাহ্ণ | বিভাগ: সারাবিশ্ব


দিনের শেষে ডেস্ক :  ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে, যেখানে জার্মানি এবং ফ্রান্স রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ‘সাম্রাজ্যবাদ’ নীতির নিন্দা করেছে। অন্যদিকে কাতার, সেনেগাল এবং তুরস্ক অবিলম্বে শান্তি আলোচনার আহ্বান জানিয়েছে এবং লিথুয়ানিয়া যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানিয়েছে। বুধবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে আল-জাজিরা।

মঙ্গলবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘের রোস্ট্রামে দাঁড়িয়ে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলজ বলেছেন, ফেব্রুয়ারীতে পুতিনের ইউক্রেন আক্রমণের সিদ্ধান্তের “কোনও যুক্তি নেই”। তিনি বলেন, এটি স্পষ্ট সাম্রাজ্যবাদ যা কেবল ইউরোপের জন্য নয়, বিশ্বব্যাপী বিপর্যয় ডেকে এনছে।

শোলজ আরও বলেন, যদি আমরা এই যুদ্ধের সমাপ্তি চাই, তবে এটি কীভাবে শেষ হবে সে সম্পর্কে আমরা উদাসীন হতে পারি না। শোলজ বলেছিলেন, পুতিন শুধুমাত্র তার যুদ্ধ এবং তার সাম্রাজ্যবাদী উচ্চাকাঙ্ক্ষা ছেড়ে দেবেন যদি তিনি বুঝতে পারেন যে তিনি জিততে পারবেন না। শোলজ প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, যুদ্ধ শেষ না হওয়া পর্যন্ত ইউক্রেনকে আর্থিক, মানবিক এবং অস্ত্র দিয়ে সমর্থন করা অব্যাহত রাখবে জার্মানি।

ইউক্রেনের যুদ্ধ এখন তার সপ্তম মাসের কাছাকাছি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে এই সংঘাতটি ইউরোপের সবচেয়ে বড় যুদ্ধে পরিণত হয়েছে, হাজার হাজার মানুষ নিহত এবং লাখ লাখ তাদের বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে। ইউক্রেন এবং রাশিয়া থেকে গুরুত্বপূর্ণ শস্য এবং সার রপ্তানির ক্ষতি ইতিমধ্যে একটি বিশ্বব্যাপী খাদ্য সঙ্কট সৃষ্টি করেছে, বিশেষ করে উন্নয়নশীল দেশগুলিতে।

রাশিয়ার আগ্রাসনের পরপরই দুটি সাধারণ পরিষদের ভোটে, জাতিসংঘের প্রায় ১৪০টি সদস্য দেশ ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়ার আগ্রাসনের তীব্র নিন্দা জানায় এবং অবিলম্বে যুদ্ধবিরতি এবং ইউক্রেনের ভূখণ্ড থেকে সমস্ত রাশিয়ান বাহিনী প্রত্যাহারের আহ্বান জানায়। তবে চীন, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা সহ ৩০টিরও বেশি দেশ বিরত ছিল। এদিকে মঙ্গলবার ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এক আবেগঘন বক্তৃতায় বলেছেন, রাশিয়ার আগ্রাসনের নিন্দায় কোনো দেশেরই নিরপেক্ষ থাকা উচিত নয়।

তিনি বলেছিলেন, আমি এই সমাবেশের সকল সদস্যদের শান্তির পথে আমাদের সমর্থন করার জন্য এবং রাশিয়াকে যুদ্ধ বন্ধ করতে বাধ্য করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি যাতে এটি নিজের এবং আমাদের জন্য মূল্য বুঝতে পারে এবং তার আগ্রাসনের অবসান ঘটাতে পারে।